বাংলাদেশ সোসাইটির নির্বাচন-২০১৮ : শীর্ষ দুই পদের প্রার্থী মনোনয়নে ৪ জেলাবাসীদের মধ্যে লড়াই : দু’টি প্যানেল হওয়ার সম্ভাবনা

নিউইয়র্ক (ইউএনএ): প্রবাসে ‘বাংলাদেশী মিনি পার্লামেন্ট’ ও যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী বাংলাদেশীদের ‘আমব্রেলা’ সংগঠন হিসেবে পরিচিত বাংলাদেশ সোসাইটি ইনক’র চলতি বছরের নির্বাচন ঘিরে সংগঠনের সম্ভাব্য প্রার্থীরা নিরবে-নিভৃতে নিজের প্রস্তুত করে চলেছেন। আর সোসাইটির শীর্ষ দুই পদের প্রার্থী মনোনয়নে কমিউনিটির বিভিন্ন জেলাবাসীদের মধ্যে বিশেষ করে সিলেট, নোয়াখালী ও মুন্সীগঞ্জ-বিক্রমপুর জেলাবাসীদের মধ্যে ঠান্ডা লড়াই শুরু হয়েছে। এর বাইরেও বৃহত্তর কুমিল্লাবাসীরাও রয়েছেন আলোচনার তালিকায়। প্রবাসে কমিউনিটির বড় জেলা হিসেবে সোসাইটির নির্বাচনে বরাবরের মতো প্রবাসী সিলেটবাসীদের বিশেষ দাবী লক্ষণীয়। খবর ইউএনএ’র।
বাংলাদেশ সোসাইটির বিগত নির্বাচন ও নির্বাচনগুলোর ফলাফল পর্যালোচনা করলে দেখা যায়, দুই বছর মেয়াদী সোসাইটির কার্যকরী কমিটির বিগত দুই টার্মের সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন সিলেট জেলা থেকে। আর এই সময়ে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন মুন্সীগঞ্জ-বিক্রমপুর জেলা থেকে। ইতিপূর্বে সোসাইটির সভাপতি বা সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন মুন্সীগঞ্জ-বিক্রমপুর, কুমিল্লা-চাঁদপুর, রংপুর, নোয়াখালী প্রভৃতি জেলা থেকে। সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, সোসাইটির আগামী নির্বাচনে সিলেট অথবা কুমিল্লা থেকে সভাপতি পদের প্রার্থীর সম্ভাবনা বেশী। অপরদিকে সাধারণ সম্পাদক পদে মুন্সীগঞ্জ-বিক্রমপুর অথবা নারায়নগঞ্জ জেলা থেকে প্রার্থী হওয়ার সম্ভাবনাই বেশী।
সোসাইটির আসন্ন নির্বাচনে সভাপতি পদের সম্ভাব্য প্রার্থীর মধ্যে রয়েছেন- সোসাইটির বর্তমান সিনিয়র সহ সভাপতি আব্দুর রহীম হাওলাদার ও সহ সভাপতি আব্দুল খালেক খায়ের। এর বাইরেও সভাপতি পদের প্রার্থী হিসেবে বাংলাদেশ বিয়ানীবাজার সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সমিতি ইউএসএ’র সাবেক সভাপতি এবং সিলেট গণদাবী পরিষদ ইউএসএ’র সভাপতি আজিমুর রহমান বুরহান ও কমিউনিটি অ্যাক্টিভিষ্ট কাজী আশরাফ হোসেন নয়নের নাম শুনা যাচ্ছে। অপরদিকে সাধারণ সম্পাদক পদের সম্ভাব্য প্রার্থীদের মধ্যে সোসাইটির বর্তমান সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমীন সিদ্দিকী পুনরায় প্রার্থী হতে পারেন। এছাড়াও সোসাইটির কোষাধ্যক্ষ মোহাম্মদ আলী আগামী নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থী হতে পারেন বলে জনশ্রুতি রয়েছে। এর বাইরেও সোসাইটির কার্যকরী পরিষদের সাবেক সদস্য ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সানি মোল্লার নাম শুনা যাচ্ছে।
জানা গেছে, উল্লেখিত প্রার্থীদের মধ্যে আব্দুর রহীম হাওলাদার আর রুহুল আমীন সিদ্দিকী মুন্সীগঞ্জ-বিক্রমপুরের সন্তান, আব্দুল খালেক খায়ের নোয়াখালী, আজিমুর রহমান বুরহান সিলেট, কাজী আশরাফ হোসেন নয়ন চট্টগ্রাম এবং মোহাম্মদ আলী ও সানি মোল্লা নারায়নগঞ্জের সন্তান।
অনুসন্ধানে জানা গেছে, সোসাইটির আগামী নির্বাচনে দু’টি প্যানেল হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এজন্য সোসাইটির তথাকথিত ‘গড ফাদার’ বা ‘নির্বাচনী কারীগর’রা তাদের পরিকল্পনা নিয়ে মাঠে মেনে পড়েছেন। সূত্র মতে, সোসাইটির আগামী নির্বাচনে বর্তমান কমিটির সিনিয়র সভাপতি আব্দুর রহীম হাওলাদারকে ঘিরে তার সমর্থক আর শুভাকাংখীরা শক্ত অবস্থান নিতে পারেন। কেননা, সোসাইটির বিগত নির্বাচনে তিনি সভাপতি পদের প্রার্থী ছিলেন। নির্বাচনের আগে তাকে সভাপতি মনোনীত করে ‘রহীম-আহবাব’ নামে একটি প্যানেলও প্রাথমিকভাবে ঘোষণা করা হয়েছিলো। কিন্তু তৎকালীন ‘গড ফাদার’ বা ‘নির্বাচনী কারীগর’দের আপত্তি বা বাঁধার মুখে ‘রহীম-আহবাব’ নির্বাচন থেকে সড়ে যেতে বাধ্য হন। পরবর্তীতে আব্দুর রহীম হাওলাদার বর্তমান কমিটির সিনিয়র সহ সভাপতি পদের মনোননয়ন পেয়ে নির্বাচিত হন। অপরদিকে ‘রহীম-আহবাব’ সম্ভাব্য প্যানেলের সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী আহবাব চৌধুরী খোকন গত নির্বাচন থেকে একেবারেই সরে দাঁড়ান। তবে আসন্ন নির্বাচন নিয়ে আব্দুর রহীম হওলাদার মুখ না খুললেও তার সমর্থকদের পক্ষ থেকে জানা গেছে, সভাপতি পদে তার প্রতিদ্বন্দ্বিতার সম্ভাবনা রয়েছে এবং আগামী নির্বাচনে তিনি বিশেষ ভূমিকা রাখবেন।



« (পূর্ববর্তী খবর)



একই ধরনের খবর

  • ২১ ফেব্রুয়ারী আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালনে নিউইয়র্কে ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ
  • জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির অভিষেক ১৬ ফেব্রæয়ারী
  • ইয়েলো সোসাইটির ‘ঐতিহাসিক’ সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত : আক্কাস-ফেরদৌস-রওশন নেতৃত্বের জয়গান মুখে মুখে
  • অ্যাপলো ব্রোকারেজ’র প্রেসিডেন্ট শমসের আলী হাসপাতালে
  • ব্রঙ্কসে সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশী আতাউর নিহত
  • আব্দুল মান্নান এমপির ইন্তেকাল
  • বাংলাদেশীদের অনুষ্ঠানে সিনেটর চাক শুমারকে ঘিরে যা হলো
  • হাইরাম মানসেরাতকে নির্বাচিত করার আহ্বান
  • Shares