বাংলাদেশ সোসাইটির আসন্ন নির্বাচন : সম্ভাব্য প্রার্থীদের প্রস্তুতি শুরু

নিউইয়র্ক (ইউএনএ): বাংলাদেশ সোসাইটি ইনক’র আসন্ন নির্বাচন ঘিরে সম্ভাব্য প্রার্থীদের প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। চলতি বছর বর্তমান কমিটির মেয়াদ শেষ হয়ে যাবে। এই কমিটির নেতৃত্ব দিচ্ছেন সভাপতি কামাল আহমেদ ও সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমীন সিদ্দিকী। চলছে আগামী দ্বি-বার্ষিক (২০১৯-২০২০) নির্বাচনের প্রস্তুতি। নির্বাচন নিয়ে সোসাইটির ঘরে-বাইরে চলছে প্রাথমিক আলোচনা, কে কে হচ্ছেন প্রার্থী? পাশাপাশি নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে সোসাইটির বর্তমান কমিটির নেতৃবৃন্দ ভাবতে শুরু করেছেন।
জানা গেছে, বাংলাদেশ সোসাইটির আসন্ন নির্বাচনে সোসাইটির কার্যকরী পরিষদের শীর্ষ দুই পদ ঘিরে সম্ভাব্য প্রার্থীরা আলোচনা শুরু করেছেন। সভাপতি পদের সম্ভাব্য প্রার্থীর মধ্যে রয়েছেন সোসাইটির বর্তমান সিনিয়র সহ সভাপতি আব্দুর রহীম হাওলাদার ও সহ সভাপতি আব্দুল খালেক খায়ের। এর বাইরেও সভাপতি পদের প্রার্থী হিসেবে বাংলাদেশ বিয়ানীবাজার সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সমিতি ইউএসএ’র সাবেক সভাপতি এবং সিলেট গণদাবী পরিষদ ইউএসএ’র সভাপতি আজিমুর রহমান বুরহান ও কমিউনিটি অ্যাক্টিভিষ্ট কাজী আশরাফ হোসেন নয়নের নাম শুনা যাচ্ছে। অপরদিকে সাধারণ সম্পাদক পদের সম্ভাব্য প্রার্থীদের মধ্যে সোসাইটির বর্তমান সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমীন সিদ্দিকী পুনরায় প্রার্থী হতে পারেন। এছাড়াও সোসাইটির কোষাধ্যক্ষ মোহাম্মদ আলী আগামী নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থী হতে পারেন বলে জনশ্রুতি রয়েছে। এর বাইরেও সোসাইটির কার্যকরী পরিষদের সাবেক সদস্য ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সানি মোল্লার নাম শুনা যাচ্ছে। খবর ইউএনএ’র।
সোসাইটির আসন্ন নির্বাচন বিষয়ে সহ সভাপতি আব্দুল খালেক খায়ের এই প্রতিনিধির সাথে আলাপকালে বলেন, গত নির্বাচনে যাদের সমর্থন, সাহায্য ও সহযোগিতায় প্রথমবারের মতো সহ সভাপতি নির্বাচিত হয়েছি, তারা যদি চান তাহলে পুনরায় নির্বাচন করতে পারি। তবে বিষয়টি আমার একার নয়। এর বাইরেও আমার এলাকার লোকজন রয়েছে তাদেরও পরামর্শ দরকার। সর্বোপরি প্রবাসীরা যদি চান তাহলে নির্বাচন করতে পারি।
সভাপতি পদের অপর সম্ভাব্য প্রার্থী আজিমুর রহমান বুরহান বলেন, কমিউনিটি নেতৃবৃন্দের সিদ্ধান্তের উপর নির্ভর করছে আমার প্রার্থী হওয়া, না হওয়া। সবাই চাইলে প্রার্থী হতে পারি। তিনি বলেন, দীর্ঘদিন ধরে কমিউনিটির সাথে জড়িত। টানা তিনবার বিয়ানীবাজার সমিতির সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছি। এখনো কমিউনিটির সাথে জড়িত রয়েছি। তবে আমি চাই সোসাইটিতে ভালো নেতৃত্ব আসুক, সোসাইটি কমিউনিটির জন্য আরো ভালো কিছু করুক।
সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমীন সিদ্দিকী বলেন, এখনো নির্বাচন বিষয়ে কিছু বলা বা সিদ্ধান্ত নেয়ার  সময় আসেনি। তবে সব কিছু নির্ভর করছে কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ সহ প্রবাসীদের চাওয়ার উপর।
সানি মোল্লা বলেন, সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থী হতে চাই। এব্যাপারে নীতিগতভাবে সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সমর্থক-শুকাংখীরাও চাচ্ছেন আমি নির্বাচন করি।
এদিকে সোসাইটির নির্বাচন পরিচালনার জন্য কার্যকরী পরিষদ নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠনের ব্যাপারে এখনো কোন সিদ্ধান্ত নেয়নি বলে জানা গেছে। তবে এবিষয়ে সংশ্লিস্টরা ভাবতে শুরু করেছেন। সোসাইটির ইসি সদস্য বিশেষ করে প্রধান নির্বাচন কমিশনার হতে একাধিক ব্যক্তিবর্গ সোসাইটির কর্মকর্তাদের সাথে লবিং শুরু করেছেন বলে বিভিন্ন সূত্রে পাওয়া তথ্যে জানা গেছে।
সূত্র মতে, প্রবাসী বাংলাদেশীদের বড় কমিউনিটি হিসেবে বৃহত্তর সিলেট, কুমিল্লা, মুন্সিগঞ্জ-বিক্রমপুর, চট্টগ্রাম ও নোয়াখালীবাসীদের গুরুত্ব রয়েছে। সেই হিসেবে এক জেলার সভাপতি মনোনয়ন পেলে অন্য জেলা থেকে সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী হয়ে থাকেন। উল্লেখ্য, সোসাইটির বর্তমান কমিটির সভাপতি কামাল আহমেদ বৃহত্তর সিলেট জেলার সন্তান। অপরদিকে সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমীন সিদ্দিকী মুন্সিগঞ্জ-বিক্রমপুর জেলার সন্তান।



(পরবর্তী খবর) »



একই ধরনের খবর

  • ২১ ফেব্রুয়ারী আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালনে নিউইয়র্কে ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ
  • জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির অভিষেক ১৬ ফেব্রæয়ারী
  • ইয়েলো সোসাইটির ‘ঐতিহাসিক’ সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত : আক্কাস-ফেরদৌস-রওশন নেতৃত্বের জয়গান মুখে মুখে
  • অ্যাপলো ব্রোকারেজ’র প্রেসিডেন্ট শমসের আলী হাসপাতালে
  • ব্রঙ্কসে সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশী আতাউর নিহত
  • আব্দুল মান্নান এমপির ইন্তেকাল
  • বাংলাদেশীদের অনুষ্ঠানে সিনেটর চাক শুমারকে ঘিরে যা হলো
  • হাইরাম মানসেরাতকে নির্বাচিত করার আহ্বান
  • Shares