ফ্রেন্ডস সোসাইটি নতুন পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা : আগামী দিনে নতুন কিছু উপহার দেয়ার প্রতিশ্রæতি

নিউইয়র্ক (ইউএনএ): জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির ২০২০-২০২১ সালের পূর্ণাঙ্গ নতুন কমিটির নাম ঘোষণা করা হয়েছে। গত ৫ জানুয়ারী রোববার দুপুরে জ্যামাইকার পার্সন্স বুলেভার্ডস্থ হালাল ডাইনার রেষ্টুরেন্টে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে নতুন কমিটির নাম ঘোষণা করা হয়। এসময় সংগঠনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্যগণ মঞ্চে উপবিষ্ট উপস্থিত ছিলেন।
সংবাদ সম্মেলনের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত ও বিশেষ দোয়া পরিচালনা করেন মওলানা শহীদুল্লাহ। এরপর লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সংগঠনের নতুন সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মোস্তফা আল আমীন এবং নতুন কমিটি ও উপদেষ্টাদের পরিচয় করিয়ে দেন নতুন সভাপতি মো: ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার। খবর ইউএনএ’র।
সংবাদ সম্মেলনে উপদেষ্টা পরিষদের সদস্যদের মধ্যে প্রধান উপদেষ্টা এবিএম ওসমান গণি, উপদেষ্টা যথাক্রমে ডা. ওয়াজেদ এ খান, ছদরুন নূর, সালেহ আহমেদ, অধ্যাপিকা হুসনে আরা বেগম, ডা. টমাস দুলু রায়, মোহাম্মদ মনির হোসেন, এবিএম সালাহউদ্দিন আহমেদ, ফরিদ আলম, ফারুক হোসেন তালুকদার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
ফ্রেন্ডস সোসাইটির নতুন কমিটির কর্মকর্তারা হলেন: সভাপতি- মো: ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার, সিনিয়র সহ সভাপতি- এ এফ মিসবাহউজ্জামান, সহ সভাপতি- শেখ আনসার আলী, আলী কে খান কাকন ও আব্দুল মন্নাফ তালুকদার, সাধারণ সম্পাদক- সৈয়দ মোস্তফা আল আমীন, সহ সাধারণ সম্পাদক- এডভোকেট কামরুজ্জামান বাবু ও রিজু মোহাম্মদ, সাংগঠনিক সম্পাদক- মো: আনোয়ার হোসেন, কোষাধ্যক্ষ- হামিদুর রহমান, প্রচার ও জনসংযোগ সম্পাদক- মো: কবীর মুন্সী, ক্রীড়া সম্পাদক- সুমন খান, সাংস্কৃতিক সম্পাদক- আফরোজা বেগম রোজী, বিজ্ঞাপন ও প্রযুক্তি সম্পাদক- শেখ আল আমিন, স্কুল ও শিক্সা বিষয়ক সম্পাদক- এডভোকেট আব্দুর রশীদ, সাহিত্য সম্পাদক- মো: আক্তার বাবুল, সমাজকল্যাণ সম্পাদক- ইসমাইল হোসেন স্বপন, আপ্যায়ন সম্পাদক- সৈয়দ লিটন আলী এবং কার্যকরী সদস্য যথাক্রমে বিলাল চৌধুরী, সাইফুল ইসলাম, শেখ হায়দার আলী, সৈয়দ আতিকুর রহমান, মো: সেবুল মিয়া, রেজাউল আজাদ ভুইয়া, ইফজাল আহমেদ চৌধুরী, হুমায়ুন কবীর, শফিকুল ইসলাম, শহীদুল ইসলাম, রাব্বি সাঈদ, এস এম সোলায়মান, তামান্না হাসিনা, সহদেব তালুকদার, রাসেক মালিক, বাবুল হাওলাদার, মুরাদ খন্দকার, লিটন আহমেদ, তরিকুল ইসলাম তুহিন, রাশেদ আল হাসান, এমডি বদিউল আলম, হিমু মিয়া, মাহিন আহমদ ও পারভীন গাজী।
সংবাদ সম্মেলনে ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার ফ্রেন্ডস সোসাইটি প্রতিষ্ঠার সংক্ষিপ্ত ইতিহাস তুলে ধরেন এবং আগামী দিনে নতুন কিছু উপহার দেয়ার প্রতিশ্রæতি দেন বিশেষ করে ফ্রেন্ডস সোসাইটির উদ্যোগে কমিউনিটি সেন্টার ও স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণে কার্যকরী উদ্যোগ নেয়া হবে বলে জানান। এজন্য তিনি সবার সহযোগিতা কামনা করেন।
এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ফ্রেন্ডস সোসাইটির উপদেষ্টা, কর্মকর্তা, সদস্য সবাই একটি পরিবার। দিনে দিনে এই পরিবারের পরিধি বাড়ছে। আমরা সবাই মিলে-মিশে প্রবাসে ঐক্যবদ্ধ শক্তিশালী কমিউনিটি গড়তে চাই। তিনি বলেন, সাংগঠনিক নিয়ম-কানুন বজায় রেখে ফ্রেন্ডস সোসাইটিকে আরো শক্তিশালী করা হবে।
অপর এক প্রশ্নের উত্তরে সভাপতি দেলোয়ার বলেন, মূলধারার নির্বাচনে ফ্রেন্ডস সোসাইটি কাউকে অফিসিয়ালী সমর্থণ করবে না। তবে সাধ্যমতো সংশ্লিস্ট প্রার্থীর জন্য কাজ করবে।
সংবাদ সম্মেলনে সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মোস্তফা আল আমীন উপস্থিত সম্পাদক ও সাংবাদিকদের ইংরেজী নতুন বছরের আন্তরিক শুভেচ্ছা জানিয়ে তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, আজ আমরা অত্যন্ত আনন্দিত। জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটি আপনাদের সহযোগিতা ও পরামর্শে আজ এতদূরে আসতে পেরেছে। এজন্য আমরা কৃতজ্ঞ। আমরা ২০২০-২০২১ সালের দ্বি-বার্ষিক কর্যকরী কমিটি গঠন করেছি। আজ আপনাদের সাথে আমরা কার্যকারী পরিষদের কর্মকর্তা এবং উপদেষ্টাবৃন্দ পরিচিত হবো এবং আগামী দিনের জন্য আপনাদের পরামর্শ ও মতবিনিময়ের জন্য বসেছি। আপনাদের পরামর্শ আমাদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আপনারা হয়তো জানেন জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটি ১৯টি বছর পার করে এসেছে। এক সময় হিলসাইড এভিনিউ ও এর আশপাশ ছিল কৃষ্ণাঙ্গদের প্রভাব-প্রতিপত্তি। সন্ধ্যার পর রাস্তায় বের হওয়া বা কাজ থেকে সাবওয়েতে ফেরার সময় অনেককেই অনেক অঘটন আর অপ্রীতিকর ঘটনার শিকার হতে হতো। এমন পরিস্থিতি দেখে জ্যামাইকায় বসবাসকারী কয়েকজন বাংলাদেশী কিশোর/যুবক ঐক্যবদ্ধভাবে উদ্ভুত পরিস্থিতি মোকাবেলা করার উদ্যোগ ও প্রচেষ্ঠায় পরবর্তীতে তৎকালীন জ্যামাইকা ফ্রেন্ডন্স ক্লাব ও জ্যামাইকা বাংলাদেশ স্পোটস ক্লাবের সম্মিলিত উদ্যোগে জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডন্স সোসাইটি নামক সামাজিক সংগঠন প্রতিষ্ঠা করেন।
এই সংগঠনটি সামাজিক কর্মকান্ডের পাশাপাশি প্রবাসী বাংলাদেশীদের বিপদে-আপদে হাত বাড়িয়ে দিয়ে নিজেদের অধিকার আদায়ে আমেরিকার মূলধারায় সম্পৃক্ত করাই সংগঠনটির প্রধান কাজ। পাশাপাশি বাংলা ভাষা, প্রিয় মাতৃভ‚মি বাংলাদেশ আর বাঙালী শিল্প-সংস্কৃতিকে প্রবাসে নতুন প্রজম্মের কাছে পরিচিত করা, নিজেদের শেকড়কে জানা, বাঙালী শিল্প সংস্কৃতিকে তাদের মধ্যে ধারন ও লালন-পালনের সুযোগ করে দেয়াই আমাদের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য।
তিনি বলেন, আমরা ফ্রেন্ডস সোসাইটির পক্ষ থেকে আগামী ২ বছরের জন্য বেশ কিছু কর্মকান্ড হাতে নিয়েছি, যা আপনাদের সাথে শেয়ার করতে চাই। যেমন: অভিষেক ও সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা। যেখানে থাকবে সেনসাস, ভোটার রেজিরেষ্ট্রশন সহ নানা ধরনের কর্মকান্ড, আন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন। যেখানে এখনকার নতুন প্রজম্মের অগ্রাধিকার ও অংশগ্রহণ থাকবে, বøাড ড্রাইভ (রক্তদান কর্মসূচি), বার্ষিক ইফতার ও দোয়া মহফিল (পবিত্র রমজানের তৃতীয় রোববার), বাংলা বর্ষবরণ ও বৈশাখী মেলা, পাশাপাশি কিছু ওয়ার্কশস ¯œাপ, মেডিকেইড, মেডিকেয়ার, আমেরিকান নির্বাচন পদ্ধতি, সোসাল সিকিউরিটি বেনিফিট, সিটি ও ফেডারেল জব সেমিনার, হিলসাইড ও ১৬৯ সাবওয়ে সিকিউর ও ক্লিন আপ প্রোগ্রাম, বাংলা স্কুল, হিলসাইড এভিনিউকে লিটল বাংলাদেশ, স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণ, হিলসাইড এভিনিউতে আলোক সজ্জা, ওমেন্স ইমপাওয়ারমেন্ট সার্পোট প্রোগ্রাম, কমিউনিটি ডে প্রভৃতি কর্মসূচী আগামী ২ বৎসর পালাক্রমে আপনাদের সহযোগিতা ও পরামর্শে এবং হিলসাইড এভিনিউর সকলের সম্পৃক্ততায় কার্যক্রমগুলো সফল করতে চাই। ছবি: নিহার সিদ্দিকী






একই ধরনের খবর

  • বাংলাদেশ স্পোর্টস কাউন্সিলের নতুন কমিটি ঘোষণা
  • ভবিষ্যতে কংগ্রেসে নেতৃত্ব দেবে বাংলাদেশীরা : চাক শুমার
  • বিশ্বব্যাপী গণহত্যার বিচার দাবী
  • নিউইয়র্কে বাংলাদেশী সুপার মার্কেট সহ ৫টি বাড়ীতে অগ্নিকান্ড ॥ আহত ১৫
  • ওজনপার্কে আগুন : ৪টি বসতবাড়ীসহ সুপার মার্কেট ক্ষতিগ্রস্ত
  • রংপুর জিলা এসোসিয়েশন’র নবনির্বাচিত কমিটির অভিষিক্ত
  • জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির সভা অনুষ্ঠিত
  • Shares