ফিলাডেলফিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশী কলেজ ছাত্রীর মৃত্যু

হককথা ডেস্ক: ফিলাডেলফিয়া এক সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশী কলেজ ছাত্রী মেহেরুন চৌধুরীর (১৯) মৃত্যু হয়েছে। সিটির কোবস ক্রিকে ৫৯ এবং চেস্টনাট স্ট্রিটে গত ৫ নভেম্বর মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে এই দুর্ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় মেহেরুনের ভাই আহত হন। সে ছিল গাড়িতেই ছিলো। তাকে প্রাথমিক চিকিৎসার পর ছেড়ে দেয়া হয়েছে। মেহেরুন বাংলাদেশের মুন্সিগঞ্জ জেলার গজারিয়ার সন্তান, ফিলাডেলফিয়ার আপার ডারবীতে বসবাসকারী লুৎফর চৌধুরী মিঠুর কন্যা।

জানা গেছে, বাংলাদেশী বংশোদ্ভুত ড্রেক্সেল ইউনিভার্সিটির ছাত্রী মেহেরুন চৌধুরী (১৯) দূঘটনায় গুরুতর আহত হলে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে তাকে পেন প্রেসবাইটেরিয়ান মেডিকেল সেন্টারে ভর্তি করা হয়। হাসপাতালে ৩৭ ঘন্টা মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে অবশেষে সে শেষ নি:শ্বাস ত্যাগ করেন। সে এই ৩৭ ঘন্টা লাইফ সাপোর্টে ছিলেন। গত ৬ নভেম্বর বুধবার দিবাগত রাত সাড়ে ১১টায় চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
স্থানীয় পুলিশের বরাত দিয়ে মিলবোর্ণ বরোর ভাইস প্রেসিডেন্ট নূরুল হাসান মিডিয়াকে জানান, ১৮ বছর বয়েসী এক তরুন কালো রংয়ের কার চালানোর সময় বায়ের লেনে চলে গেলে মেহেরুণের বিএমডব্লিউ সেখানে থাকা স্কুলবাসের পেছনে সজোরে ধাক্কা লাগে। এতে তার গাড়ীর সামনের অংশ চুর্ণ-বিচুর্ণ হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে ক্ষতিগ্রস্ত গাড়ির ভেতর থেকে বের করে মেহেরুন ও তার ভাই-কে হাসপাতালে নিয়ে যায়। মেহেরুনের মৃত্যুর খবরে প্রবাসীদের মধ্যে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।
মরহুমা মেহেরুন চৌধুরীর নামাজে জানাজা শুক্রবার (৮ নভেম্বর) বাদ জুম্মা আপার ডারবি’র মদিনা মসজিদে অনুষ্ঠিত হবে বলে নিউইয়র্ক বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের সদস্য আজাদ আহমেদ জানিয়েছেন।






একই ধরনের খবর

  • লুইজিয়ানায় বাংলাদেশী শিক্ষার্থীকে গুলি করে হত্যা
  • নাস্তিকতায় বেপরোয়া হয়ে নিজ বাবা-মাসহ পরিবারের ৪ সদস্যকে খুন করে মিনহাজ
  • টরন্টোতে বাংলাদেশী একই পরিবারের চারজনের লাশ উদ্ধার
  • ‘সন্তান নাস্তিক’ এই লজ্জা থেকে বাবা মাকে মুক্তি দিতে হত্যা!
  • টরন্টোতে বাবা-মাসহ পরিবারের ৪ সদস্যকে খুন করল বাংলাদেশী যুবক
  • টরন্টোতে বাসা থেকে দম্পতিসহ ৪ বাংলাদেশীর লাশ উদ্ধার
  • যুক্তরাষ্ট্রে আশ্রয় না পেয়ে কানাডায় রাজনৈতিক আশ্রয় চেয়েছেন সাবেক প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহা
  • Shares