নিউইয়র্কে হাসপাতালে গুলি, চিকিৎসকসহ নিহত ২

নিউইয়র্ক: নিউইয়র্কের ব্রঙ্কস-লেবানন হাসপাতালে নির্বিচারে গুলি ছুড়েছে ডাক্তারের পোশাক পরিহিত এক বন্দুকধারী। এতে এক নারী ডাক্তার নিহত এবং ৬ জন আহত হয়েছেন। পরে নিজের গুলিতে হামলাকারীও মারা যান। স্থানীয় সময় শুক্রবার (৩০ জুন) অপরাহ্নে কিছু আগে চিকিৎসকের পোশাক পরে হাজার শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালটিতে এ হামলা চালানো হয়। নিউইয়র্ক সিটির পুলিশ কমিশনার জেমস ও’নেইল বলেন, হামলার পর ঘটনাস্থল থেকে সাদা ল্যাব কোট পরিহিত ওই বন্দুকধারীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ সময় তার পাশে বন্দুকটি পড়ে ছিল। হামলাকারীকে সনাক্ত করেছে পুলিশ। তিনি আগে এই হাসপাতালেই কাজ করেছেন। তবে হাসপাতাল সূত্র তার নাম জানাতে অপরাগতা প্রকাশ করেছে। যদি পুলিশ সূত্র বলছে, ওই হামলাকারীর নাম হেনরি বেলো (৪৫)। তিনি একজন সাবেক মেডিসিন বিশেষজ্ঞ। ২০১৫ সালে মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই তিনি চাকরি ছেড়েছিলেন। এদিকে, হামলা ঘটনাটি সন্ত্রাসী কর্মকান্ড হিসেবে দেখছে না সিটি মেয়র কিংবা পুলিশ। মেয়র বিল ডি ব্লাজিও বলেন, এটা সন্ত্রাসী কর্মকান্ড নয়। বরং এটি কর্মক্ষেত্র সম্পর্কিত ঝামেলার পরিণতি।
স্থানীয় টাইম টেলিভিশনের খবরে বলা হয়েছে: ব্রঙ্কস-লেবানন হাসপাতালের ভিতরে অতর্কিত এ হামলায় একজন চিকিৎসক’সহ বন্দুকধারী নিজেও নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। হামলাকারী নিহত হওয়া আগে কমপক্ষে ছয়জন মানুষকে লক্ষ্য করে গুলি চালানো হয়।  হেনরি বেলো নামে পরিচিত, যিনি আগে হাসপাতালেই কাজ করতেন। নিউইয়র্ক সিটির পুলিশ কমিশনার জেমস ওনিলে এক বিফ্রিংয়ে বলেন, এটি ছিল আত্মঘাতী হামলা। তবে, বন্দুকধারী নিজে আতœহত্যা করেছেন, না কি পুলিশের গুলিতে মারা গেছেন বিষয়টি পুরোপুরি নিশ্চিত নন অনেকে। হাসপাতালটির আশ-পাশে বাংলাদেশীদের তেমন বসবাস না থাকলেও ঘটনার পর ব্রঙ্কসের বাংলাদেশী অধ্যুষিত এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। ঘটনা স্থল থেকে উদ্ধার হওয়া এবং হাসপাতালে অপেক্ষমান রোগি ও স্বজনরদের মাঝেও নেমে আসে আতঙ্ক।
হেনরি বেলো নামের বন্দুকধারী নিজেও একজন চিকিৎসক বলে নিশ্চিত হয়েছে পুলিশ। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে জানানো হয়েছে, বন্দুকধারী তিনিও লেবানন হাসপাতাল ব্রঙ্কসের কাজ করতেন। কিন্তু হঠাৎ কেন তিনি ডাক্তার বেশে অতর্কিত হামলা চলাবেন সে বিষয়টি এখনো পরিস্কার নয়। ধারণা করা হচ্ছে তিনি মানসিক ভারসাম্য ছিলেন। আবার কেউ কেউ বলছেন, সহকর্মীদের সাথে পূর্ব শত্রুতা কিংবা ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশও ঘটতে পারে। শেষ খবরে বন্দুকধারী চিকিৎসক হেনরি নিজেও মারা গেছেন। হাসপাতালটির ১৬ তলায় ঘটনাটি ঘটার সময় অগ্নিনির্বাপক তথা ফায়ার এলার্মিং সিস্টেম বন্ধ করে রাখেন হেনরি বেলো। ধারণা করা হচ্ছে তিনি নিজেও, আগুনে পুড়ে যেতে চেয়েছিলেন। যদিও পুলিশের সাথে গোলাগুলি ও বন্দুকধারীর গুলিতে সৃষ্ট সংঘর্ষে আরো ছয়জন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় কোন বাংলাদেশী হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। ঘটনার তদন্ত করছে এনওয়াপিডি’র বিশেষ টিম। মেডিকেল লিস্টের তথ্যে নিহত বন্দুকধারী হেনরি মেডিসিন বিভাগের ডাক্তার ছিলেন।
ব্রঙ্কসের লেবানন হাসপাতালে গোলাগুলী ও চিকিৎসকদের ওপর অতর্কিত হামলার নিন্দা জানিয়েছেন, সিটি মেয়র বিল ডি ব্লাজিও। তিনি বলেন, এ ধরণের ঘটনা অপ্রত্যাশিত। তবে, বিষয়টি সহিংসতা বলেও অভিহিত করেছেন  মেয়র। শুক্রবার ঘটনার খবরে হসাপতালের কাছে ছুটে যান মেয়র। এসময়ে উপস্থিত গণমাধ্যমকে দেয়া ব্রিফিংয়ে ঘটনার বর্ননাও তুলে ধরেন ব্লাজিও। এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার পক্ষ থেকে লেবানন হসপিটালের হামলা সন্ত্রাসী কর্মকান্ড নয় বলে দাবি করেছে। সিটি মেয়রও বিষয়টিকে সন্ত্রাসি হামলা হিসেবে দেখতে নারাজ।






একই ধরনের খবর

  • জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহীম নিউইয়র্কে
  • নিউইয়র্কের ওয়াশিংটন মেমোরিয়াল কবর স্থানে দাফন
  • নিউইয়র্ক মহানগর আ. লীগের আনন্দ সমাবেশ
  • BOROUGH PRESIDENT WELCOMES CG OF BANGLADESH TO QUEENS
  • নিউইয়র্ক বাংলাদেশী আমেরিকান লায়ন্স ক্লাবের নতুন কমিটি অভিষিক্ত
  • নিউইয়র্ক সিটিতে বাড়ী ক্রয়ে ২০ হাজার ডলার সাহায্য গ্রহণের সুযোগ
  • জ্যামাইকায় বারী হোম কেয়ারের দ্বিতীয় শাখা উদ্বোধন
  • জাঁকজমকপূর্ণ সিলেট সদর সমিতির বনভোজন প্রবাসীদের মিলন মেলায় পরিনত
  • Shares