ব্যতিক্রমী আয়োজনে ব্যাপক প্রস্তুতি

নিউইয়র্কে শিশু-কিশোর মেলা ১৭ মার্চ

নিউইয়র্ক: মুক্তধারা ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে আগামী ১৭ মার্চ শনিবার নিউইয়র্কে আযোজিত হচ্ছে শিশু-কিশোর মেলা। দিনটি বাংলাদেশের জাতীয় শিশু দিবস। শিশু মেলা উপলক্ষ্যে ঐদিন নিউইয়র্কে দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করা হবে। এজন্য ব্যতিক্রমী আয়োজনে চলছে ব্যাপক প্রস্তুতি। মেলাটি সফল করতে এই প্রথমবারের মতো নতুন প্রজন্মের নেতৃত্বে এবং তাদের পরিকল্পনা ও গ্রন্থনায় রিহার্সেল চলছে বিভিন্ন অনুষ্ঠানমালার।
শিশু মেলার আহ্বায়ক সেমন্তী ওয়াহেদ জানান, মুক্তধারা ফাউন্ডেশন নিউইয়র্কে বইমেলা আয়োজন উপলক্ষে বিগত ২৭ বছর ধরে শিশু কিশোর প্রতিযোগিতা করে আসছে। ২৬তম বইমেলা অর্থাৎ গত বছর শিশু-কিশোর মেলার প্রথম আয়োজনের আহ্বায়ক ছিলেন বিশিষ্ট লেখক ও কলামিস্ট হাসান ফেরদৌস।
তিনি জানান, ১৫ থেকে ২৫ বছরের নতুন প্রজন্মের নিয়েই এবারের মেলা আয়োজন হচ্ছে। মেলা কমিটিতে ২২/২৫ জনের সদস্য রয়েছে। এরা সবাই নতুন প্রজন্মের। আর এবারই প্রথমবারের মতো শিশু-কিশোরদের মেলার আয়োজন করছে নতুন প্রজন্মের ছেলেমেয়েরাই। আগামী ১৭ মার্চ বাংলাদেশের শিশু দিবসে নিউইয়র্ক সিটির পিএস ৬৯ মিলনায়তনে এই মেলা অনুষ্ঠিত হবে। বেলা ১১টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত মেলার কার্যক্রম চলবে। মেলার বিভিন্ন প্রতিযোগিতার বিষয় থাকবে বাংলা লিখন ও রচনা, চিত্রাঙ্কন, নৃত্য, আবৃত্তি, সঙ্গীত এবং ফটোগ্রাফী। এছাড়াও এই প্রথমবারের মতো অভিনয় প্রুতযোগিতাও থাকছে।  ৫ থেকে ১৬ বছর বয়সী শিশু-কিশোর-কিশোরীরা এতে অংশ নিতে পারবে।
আরো থাকবে দুটি কুইজ শো: ৫-১০ বছর এবং ১১-১৬ বছর বসীয়দের জন্য। এজন্য থাকবে বিশেষ পুরষ্কার প্রাইজ মানি। আরো থাকবে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির সাথে প্রশ্ন-উত্তর পর্ব। থাকবে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।
সেমন্তী ওয়াহেদ জানান,  শিশুমেলার সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সুন্দর, আকর্ষনীয় ও উপভোগ্য করে তুলতে জ্যাকসন হাইটসের বেলাজিনোতে চলছে রিয়ার্সেল। সপ্তাহের প্রতি শুক্র, শনি, রোববার এবং স্কুল বন্ধের সময় দিনব্যাপী রিয়ার্সেল চলে। এই রিয়ার্সেলের স্পন্সর হচ্ছেন কমিউনিটির পরিচিতি মুখ, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ড. দেলোয়ার হোসেন।
আগামী ১০ মার্চ সূত্র এডভারটাইজিং ‘ব্যাকড্রপ ক্রিয়েটিং ইভেন্ট’-এর আয়োজন করেছে। এদিনের এই ইভেন্টে শিশু-কিশোর-কিশোরীরা অংশ নেবে।
সেমন্তী ওয়াহেদ আরো জানান, অর্ধ শতাধিক প্রতিযোগি শিশুমেলায় বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংম নেবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এছাড়াও প্রতিযোগিরা বাইল্যংগুয়েল স্ক্রীট তৈরী, গান নির্বাচন, প্রশিক্ষণ সহ সবকিছুই নিজেরাই করছে। মেলাটি সফল করতে তিনি প্রবাসীদের সহযোগিতা আর দর্শকদের উপস্থিতি কামনার পাশাপাশি তাদেরকে আনুপ্রানিত করে সবার সাথে সেতু বন্ধন জোরদার করার অনুরোধ জানান। (বাংলা পত্রিকা)






একই ধরনের খবর

  • বাংলাদেশের উন্নয়ন-আগ্রগতি অব্যাহত রাখতে শেখ হাসিনার সরকার বারবার দরকার
  • নতুন প্রজন্মের কাছে দেশ ও সংস্কৃতিকে তুলে ধরার নামে নিউইয়র্কে ‘বাংলা সংস্কৃতি’ বাণিজ্য
  • কনসাল জেনারেল সাদিয়া ফয়জুননেসা এবং টম নাগোরস্কির মধ্যে বৈঠক
  • প্রধানমন্ত্রী আসছেন রোববার ॥ জাতিসংঘে ভাষণ দেবেন ২৭ সেপ্টেম্বর ॥ প্রধান্য পাবে রোহিঙ্গা সমস্যা
  • নিউইয়র্কে যুবলীগের দু’গ্রুপে সংঘর্ষ : গ্রেফতার-৩
  • যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের কমিটি কতদূর ?
  • সেই রাতে জ্যাকসন হাইটসের রেস্টুরেন্টে যা ঘটেছিল!
  • শোক, সমবেদনা, গভীর শ্রদ্ধা আর ভালবাসায় ৯/১১ স্মরণ
  • Shares