বাপা’র টাইন হল মিটিংয়ে ২০ জনের প্রশ্নের উত্তর দিলেন জেমস ও’নীল

নিউইয়র্কের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতিতে আমি সন্তুষ্ট নই

বিশেষ প্রতিনিধি: নিউইয়র্ক সিটি’র পুলিশ কমিশনার জেমস ও’নীল অভিবাসী বাংলাদেশীদের আইন মেনে চলার প্রশংসা করে বাংলাদেশী কমিউনিটির জন্য পুলিশের পক্ষে থেকে সবধরণের সহায়তা অব্যাহত রাখার কথা জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, নিউইয়র্ক সিটির আইন-শৃংখলা পরিস্থিতি অতীতের যেকোন সময়ের চেয়ে অনেক ভালো। তবে ব্যক্তিগতভাবে আমি এই পরিস্থিতিতে সন্তুষ্ট নই। তিনি ‘সি সাম থিং, ছে সাম থিং’ শ্লোগান অনুসরণ করার উপর গুরুত্বারোপ করে করে বলেন, সবাই মিলে নিউইয়র্ক সিটিকে আরো সুন্দর ও অপরাধমুক্ত করতে হবে। বিশেষ করে স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের প্রতি সুনজর রেখে অভিভাবদের দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে হবে। বাংলাদেশী-আমেরিকান পুলিশ এসোসিয়েশন (বাপা) আয়োজিত এক টাউন হল মিটিংয়ে পুলিশ কমিশনার এসব কথা বলেন।
সিটির ব্রঙ্কসের গোল্ডেন প্যালেসে গত ১২ জুন বুধবার সন্ধ্যায় এই টাউন হলের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন নিউইয়র্কে বাংলাদেশ কনস্যুলেটের কনসাল জেনারেল সাদিয়া ফয়জুননেসা। এনওয়াপিডি’র ডিটেকটিভ মশিউর রহমানের উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ক্যাপ্টেন আব্দুল্লাহ। এছাড়াও বক্তব্য রাখেন বাপা’র সভাপতি লেফটেনেন্ট সুজাত খান। তিনি অন্যান্য অতিথি সহ বাংলাদেশী-আমেরিকান পুলিশ কর্মকর্তাদের পরিচয়ও করিয়ে দেন। অনুষ্ঠানে বাপা’র পক্ষ থেকে পুলিশ কমিশনার জেমস ও’নীল-কে উপহার স্বরূপ প্ল্যাক প্রদান করা হয়। এরপর বাপা’র পক্ষ থেকে ধন্যবাদসূচক বক্তব্য রাখেন করিম চৌধুরী। পরবর্তীতে পুলিশ কমিশনার বক্তব্য রাখেন এবং উপস্থিত বাংলাদেশী নেতৃবৃন্দের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন। উল্লেখ্য, বাপা প্রতিষ্ঠার পর এটি ছিল বাপা’র তৃতীয় টাউন হল মিটিং।
প্রশ্নোত্তর পর্বে পুলিশ কমিণার ও’নীল ২০জনের বিভিন্ন বিষয়ক প্রশ্নের উত্তর দেন। এই পর্ব সঞ্চালনা করেন বাপা’র সাধারণ সম্পাদক সার্জেন্ট হুমায়ুন কবীর। প্রশ্ন কর্তারা ছিলেন যথাক্রমে কমিউনিটি বোর্ডের ভাইস চেয়ার এন মজুমদার, এটর্নী মঈন চৌধুরী, নিউইয়র্ক সিটির স্কুল শিক্ষীকা আবিদা খানম, পার্কচেষ্টার ব্রঙ্কস রিয়েলটির প্রেসিডেন্ট সালেউদ্দিন জেবিবিএ’র সাবেক সভাপতি জাকারিয়া মাসুদ জিকো, বাংলাদেশ সোসাইটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ফখরুল আলম, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ফাহাদ সোলায়মান, সাংবাদিক শাহাবুদ্দীন সাগর, আব্দুল চৌধুরী সিপিএ, কলেজ শিক্ষার্থী সাদিয়া চৌধুরী, কমিউনিটি অ্যাক্টিভিষ্ট হাসান আলী, সেন্টার ফর এনআরবি’র চেয়ারপার্স শেকিল চৌধুরী, কমিউনিটি অ্যাক্টিভিষ্ট মাদেজা উদ্দিন, শিক্ষার্থী তানজিয়া চৌধুরী, কমিউনিটি নেতা মোস্তাক চৌধুরী, মোহাম্মদ আলম, সাংবাদিক শাহেদ আলম, কমিউনিটি নেতা আব্দুল চৌধুরী, আব্দুস শহীদ ও মোহাম্মদ রহমান। এদের মধ্যে কয়েকজন একাধিক প্রশ্ন করেন। পুলিশ কমিশনার ধৈর্য্য ধরে সকল প্রশ্ন শুনেন এবং একে একে সকল প্রশ্নের জবাব দেন। এসময় সংশ্লিস্ট প্রশ্নের উত্তরে জেমস ও’নীল-কে সহযোগিতা করেন এনওয়াইপিডি’র কমিউনিটি অ্যাফেয়ার্স ব্যুরোর এ্যাসিসটেন্স চীফ কিম রয়েস্টার, ডিপার্টমেন্ট এডভোকেট অফিসের ডেপুটি কমিশনার কেভিন রিচার্ডসন, স্থানীয় ৪৩ প্রিসিঙ্কটের কমান্ডিং অফিসার ডিআই বেঞ্জামীন গার্লী ও এইচসিটিএফ-এর কমান্ডিং অফিসান ডিআই মার্ক মলিনারী।
প্রশ্নকর্তাদের বিভিন্ন প্রশ্নের মধ্যে ব্রঙ্কসে নির্মিতব্য সেক্সচুয়াল ওফেন্ডারদের জন্য শেল্টার, হেইট ক্রাইম, মসজিদগুলোর মুসল্লীদের নিরাপত্তা, ট্রাফিক টিকিট, সিটির ক্রাইম, এনওয়াইপিডি’র বিভিন্ন বিভাগে বাংলাদেশী-আমেরিকান পুলিশ অফিসার নিয়োগ, স্ট্রীং অপারেশন, ডমেস্টিক ভায়োলেন্স, বাংলাদেশী তরুণ আশিকুল আলম গ্রেফতার প্রভৃতি বিষয় স্খান পায়।
ব্যতিক্রমী এই অনুষ্ঠানে প্রবাসী বাংলাদেশীরা ‘ধর্ম, বর্ণ এবং জাতিগত বিদ্বেষমূলক হামলার ঘটনা বৃদ্ধি পাওয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করলে পুলিশ কমিশনার বলেন যে, হেইট ক্রাইম টাস্কফোর্সে প্রয়োজন হলে একজন বাঙালী অফিসারও নেয়া হবে।
অতি সম্প্রতি ম্যানহাটানের টাইমস স্কোয়ারে হামলার পরিকল্পনার অভিযোগে আটক বাংলাদেশী তরুণ আশিকুল আলমকে নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে পুলিশ কমিশনার ও’নীল বলেন, ‘জনগণের নিরাপত্তায় আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী বদ্ধপরিকর। এ নিয়ে কোনও আপসের সুযোগ নেই। তবে আমাদের সন্তানরা কোথায় যাচ্ছে, কার সাথে মেলামেশা করছে, সে ব্যাপারে অবশ্যই অভিভাবকের নজরদারি ও দায়িত্বশীল হতে হবে। তিনি প্রতি মাসে পুলিশ প্রিসিঙ্কটে অনুষ্ঠিত কমিউনিটিভিত্তিক সভায় সংশ্লিস্টদের অংশ নেওয়ার আহ্বান জানান।
অনুষ্ঠানে নিউইয়র্ক সিটির পুলিশ ডিপার্টমেন্টে সর্বোচ্চ পদকপ্রাপ্ত ক্যাপ্টেন বাংলাদেশী-আমেরিকান খন্দকার আব্দুল্ল¬াহকে বিশেষভাবে পরিচয় করিয়ে দেয়া হয়। এতে ব্রঙ্কস ছাড়াও কুইন্স সহ সিটির অন্যান্য এলাকার বিপুল সংখ্যক বিশিষ্ট ব্যক্তি ও বিভিন্ন স্তরের কমিউনিটির নেতৃবৃন্দ অংশ নেন।






একই ধরনের খবর

  • অ্যাসেম্বলীম্যান অরটিজের বাংলাদেশী স্টাফ মারুফ গ্রেফতার
  • ২৫ আগস্ট জেবিবিএ’র পথমেলা
  • বিভক্ত ফোবানা এগিয়ে চলছে : সবার দৃষ্টি ১৬ আগষ্ট
  • ‘জাতীয় শোক দিবস’ ১৫ আগস্ট স্মরণে নিউইয়র্কে ব্যাপক কর্মসূচী গ্রহণ
  • বিশ্ব মানবতার শান্তি ও কল্যাণ কামনা : উত্তর আমেরিকায় পবিত্র ঈদুল আযহা পালিত
  • ঈদের শুভেচ্ছা
  • যুক্তরাষ্ট্রে ঈদুল আযহা ১১ আগস্ট
  • নিউইয়র্কে বঙ্গবন্ধু বইমেলা ২০-২২ আগষ্ট
  • Shares