নিউইয়র্কসহ উত্তর আমেরিকায় পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত : জেএমসি’র উদ্যোগে সর্ববৃহৎ ঈদের জামাত ॥ ১২/১৫ হাজার মুসল্লীর অংশগ্রহণ ॥ এক নারীর ইসলাম গ্রহণ

নিউইয়র্ক (ইউএনএ): বিপুল উৎসাহে যথাযোগ্য মর্যাদা আর ধর্মীয় ভাবগম্ভীর পরিবেশে নিউইয়র্কসহ উত্তর আমেরিকায় পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত হয়েছে। দীর্ঘ এক মাস সিয়াম সাধানার পর ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের বিশেষ আনন্দের দিন পবিত্র ঈদুল ফিতরের দিন। তবে লোকাল ও গ্লোবাল মুনসাইটিং বিভাজন আর চাঁদ দেখা সাপেক্ষে না-কি সৌদী আরবে ঈদ উদযাপন ঘোষণা সাপেক্ষে বিভ্রান্তি থাকার পরও এবছর ৪ জুন মঙ্গলবার ঈদুল ফিতর উদযাপিত হয়েছে। তবে কোথাও কোথাও ৫ জুন বুধবার ঈদ উদযাপিত হয়েছে। নিউইয়র্ক সহ অধিকাংশ স্থানে মঙ্গলবার-ই ঈদুল ফিতর উদযাপন করেন বাংলাদেশী মুসলিম কমিউনিটি সহ অন্যান্য মুসলিম কমিউনিটি। চমৎকার আবহাওয়ায় নিউইয়র্কসহ উত্তর আমেরিকার একাধিক খোলা মাঠ, মসজিদ আর কমিউনিটি সেন্টারে ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায় করা হয়। ঈদের জামাত শেষে অনুষ্ঠিত বিশেষ মুনাজাতে সমগ্র মুসলিম উম্মাসহ দেশ-জাতির মঙ্গল ও সমৃদ্ধি এবং দেশে দেশে নিপীড়িত-নির্যাতিত মুসলমানদের বিশেষ করে নিরীহ ফিলিস্তিনীদের রক্ষায় মহান আল্লাহতায়ালার রহমত কামনা করা হয়। খবর ইউএনএ’র।
নিউইয়র্কের একটি ঈদগাহে এসে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ

এদিকে পবিত্র ঈদুল ফিতরের দিনে ইসলামের সুমহান সাম্য ও শান্তির আদর্শে উদ্বুদ্ধ হয়ে নিউইয়র্কের একটি ঈদগাহে এসে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন একজন খ্রীস্ট ধর্মাবলম্বী অমুসলিম নারী। ৪ জুন মঙ্গলবার ঈদের দিনে সিটির জ্যামাইকার আমেরিকান মুসলিম সেন্টারের আয়োজিত ঈদ জামাতে এই আনন্দময় ঘটনা ঘটে বলে জানা গেছে। ঈদ জামাতে আল্লামা তারেক মনোয়ারের বয়ান শুনে কারমেন নামের ঐ নারী ইসলাম গ্রহনের কথা জানান। এসময় তিনি আরো জানান যে, ইসলামের শান্তির আদর্শে উদ্বুদ্ধ হয়েই তিনি ইসলাম গ্রহণ করেছেন। আল্লামা শাইখ তারেক মনোয়ারের হাতে ইসলাম গ্রহণের পর কারমেন নামের ঐ নারী নতুন খাদিজা নাম গ্রহণ করেন।
অপরদিকে নিউইয়র্ক সিটিতে বাংলাদেশীদের দ্বারা পরিচালিত বৃহত্তম মসজিদগুলোর অন্যতম কুইন্স বরোর জ্যামাইকায় অবস্থিত জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টার (জেএমসি)-এর উদ্যোগে স্থানীয় টমাস এডিসন হাইস্কুল খেলার মাঠে (১৬৮ এবং ৮৪ এভিনিউ, জ্যামাইকা, নিউইয়র্ক ১১৪৩২) সকাল সোয়া ৯টায় উত্তর আমেরিকার সর্ববৃহৎ ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়। এতে শিশু-কিশোর-কিশোরী থেকে শুরু করে বয়োবৃদ্ধ সর্বস্তরের ১২ থেকে ১৫ হাজার মুসলিম নর-নারী একত্রে ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায় করেন বলে অনেকেই অভিমত প্রকাশ করেছেন। এই জামাতে ইমামতি ও বিশেষ দোয়া পরিচালনা করেন জেএমসি’র খতিব আলহাজ মাওলানা মির্জা আবু জাফর বেগ। এছাড়া খুৎবা পড়েন জেএমসি’র ইমাম শামসে আলী।
জেএমসি আয়োজিত ঈদুল ফিতরের নামাজের আগে জেএমসি পরিচালনা কমিটির ডা. সিদ্দিকুর রহমান, কুইন্স বরো প্রেসিডেন্ট মেলিন্ডা কাটস, নিউইয়র্ক সিটি কাউন্সিলম্যান ররি ল্যান্সম্যান ও কাউন্সিলম্যান কস্টা এবং স্থানীয় পুলিশ প্রিসেঙ্কট-এর প্রতিনিধি প্রমুখ উপস্থিত মুসল্লিদের উদ্দেশ্যে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন। এই পর্ব উপস্থাপনায় ছিলেন জেএমসি’র সেক্রেটারী মনজুর আহমেদ চৌধুরী। খবর ইউএনএ’র।
জ্যামাইকার আল আরাফা মসজিদ কমিটির উদ্যোগে অন্যান্য বছরের মতো এবছরও স্থানীয় সুসান বি এন্থনী স্কুলের খেলার মাঠে খোলা আকাশের নীচে পবিত্র ঈদুল ফিতরের নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। এতে কয়েক হাজার শিশু কিশোর-কিশোরীসহ নর-নারী ঈদের নামাজ আদায় করেন।
এদিকে কানাডা ও ওয়াশিংটন ডিসিসহ যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সী, কানেকটিকাট, ম্যারিল্যান্ড, পেনসেলভেনিয়া, ভার্জেনিয়া, ওয়াহিও, ফ্লোরিডা, নর্থ ক্যারোরিনা, সাউথ ক্যারোলিনা, জর্জিয়া, মিশিগান, ক্যালিফোর্নিয়া, টেক্সাস, প্রভৃতি অঙ্গরাজ্যে যথাযোগ্য মর্যাদা ও ধর্মীয় ভাবগম্ভীর পরিবেশে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এসব অঙ্গরাজ্যে বসবাসকারী বাংলাদেশীরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে এলাকার মসজিদ, কমিউনিটি সেন্টার ও খোলা মাঠে ঈদের নামাজ আদায় করেন।
প্রতিটি ঈদের জামাত শেষে নবীন-প্রবীণ, ছোট-বড় সকলকে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় ও কোলাকুলি করতে দেখা যায়। সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে ঈদের নামাজ আদায়ের জন্য মসজিদ পরিচালনা কমিটির উদ্যোগে সর্বত্রই নেয়া হয় বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা। সেই সাথে সিটি প্রশাসনেরও বিশেষ নিরাপত্তা লক্ষ্য করা যায়। ঈদের নামাজ আদায়ের স্থানগুলোর আশপাশের রাস্তায় ফ্রি গাড়ী পার্কিং এর ব্যবস্থা থাকায় দূর দূরান্ত থেকে শত শত ধর্মপ্রাণ মুসল্লীরা সপরিবারে ঈদের নামাজে শরীক হন। রং বেরং এর বাহারী পোশাক গায়ে নামাজিদের একত্রে ঈদের নামাজ আদায় ভীন দেশীদের বিশেষভাবে আকৃষ্ট করে। সেই সাথে ঈদের মাঠে বিরাজ করে উৎসবমুখর পরিবেশ। ঈদের দিনটি উইক ডে মঙ্গলবার থাকার পরও ঈদের নামাজের জামাতগুলোতে বিপুল সংখ্যক ধর্মপ্রাণ মুসলিম নর-নারীকে যোগ দিতে দেখা যায়। অনেকে সপরিবারে আবার অনেকে বন্ধু-বান্ধব নিয়ে ঘনিষ্টজনদের বাসা-বাড়ীতে গিয়ে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। এছাড়া প্রবাসীরা ফোনে বাংলাদেশে ফোন করে স্বজনদের সাথে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।
নিউইয়র্কের যেসকল মসজিদ ও ইসলামিক সেন্টারের উদ্যোগে গত মঙ্গলবার (৪ জুন) ঈদুল ফিতরের নামাজ অনুষ্ঠিত হয় সেগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো:
কুইন্সের জ্যামাইকার হাজী ক্যাম্প মসজিদে ঈদুল ফিতরের চারটি জামাত অনুষ্ঠিত হয় যথাক্রমে সকাল ৭টা, ৮টা, ৯টা ও সাড়ে ১০টায়।
জ্যামাইকার আরাফাহ ইসলামিক সেন্টারের উদ্যোগে (১৮১-১৪ হিলসাইড এভিনিউ) ঈদের একটি জামাত অনুষ্ঠিত হয় সকাল ৯টায় আই এস ২৩৮ (সুজান বি এন্থনী স্কুল)-এর খেলার মাঠে।
জ্যামাইকা দারুস সালাম মসজিদে (১৪৮-১৬ ৮৭ ষ্ট্রিট) ঈদের চারটি জামাত অনুষ্ঠিত হয় যথাক্রমে যথাক্রমে সকাল ৭:৩০, ৮:৩০, ৯:৩০ ও ১০:৩০ মিনিটে।
নর্থ ক্যারোরিনায় ঈদের জামাত

জ্যাকসন হাইটসের নিউইয়র্ক ঈদগাহ্’র উদ্যোগে ঈদের পাঁচটি জামাত অনুষ্ঠিত হয় যথাক্রমে সকাল ৭টা, ৮টা, ৯টা, ১০টা এবং ১১টায় ডাইভারসিটি প্লাজায়। এর তত্তাবধানে ছিলেন এবং প্রথম জামাতে ইমামতি করেন ইমাম কাজী কাইয়্যুম।
নব প্রতিষ্ঠিত আমেরিকা মুসলিম সেন্টার-এর আয়োজনে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয় সকাল ৯টায় জ্যামাইকার রুফুস কিং পার্কে। এতে ইমামতি করেন আল্লামা তারেক মনোয়ার।
ইস্ট এলমহার্স্ট জমে মসজিদ এন্ড মুসলিম সেন্টারের আয়োজনে ঈদুল ফিতরের একটি জামাত অনুষ্ঠিত হয় সকাল ৯টায় পিএস ১২৭ এর প্লেগ্রাউন্ডে।
ম্যানহ্যাটানের মদীনা মসজিদে ঈদের একটি জামাত অনুষ্ঠিত সকাল ৮.৩০ মিনিটে মসজিদ সংলগ্ন ওভাল পার্ক মাঠে।
ডাউনটাউন ম্যানহাটনের আসসাফা মসজিদে ঈদের দু’টি জামাত অনুষ্ঠিত হয় ১৭২ এলরিজ ষ্ট্রিটে যথাক্রমে সকাল ৭টা এবং ৮টায়।
ব্রঙ্কসের পার্ক চেষ্টার জামে মসজিদে ঈদের দুটি জামাত অনুষ্ঠিত হয় যথাক্রমে সকাল ৮টা ও ৯টায়।
ব্রঙ্কস বাংলাবাজার জামে মসজিদে ঈদের একটি জামাত অনুষ্ঠিত হয় সকাল সাড়ে ৮টায় পিএস ১০৬ এর খোলার মাঠে।
ব্রঙ্কসের স্টারর্লিং বাংলাবাজার জামে মসজিদের আয়োজনে ঈদের একটি জামাত অনুষ্ঠিত হয় সকাল সাড়ে ৮টায় স্থানীয় পিএস ১০৬ এর প্লে গ্রাউন্ডে।
ব্রুকলীনে বাংলাদেশ মুসলিম সেন্টার আয়োজিত ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয় সকাল সাড়ে ৮টায় মসজিদের অভ্যন্তরে।
বায়তুল জান্নাহ মসজিদে ঈদের একটি জামাত অনুষ্ঠিত হয় সকাল সাড়ে ৮টায় ম্যাকডোনাল্ড এভিনিউর উপর (চার্চ ও এভিনিউ সি’র মাঝে)।

জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টার (জেএমসি)-এর ঈদের জামাত

ব্রুকলীনে বায়তুল জান্নাহ মসজিদে ঈদের  জামাত

নর্থ ক্যারোরিনায় ঈদের জামাত  এবং  নিউইয়র্কে  সপরিবারে  আবার অনেকে বন্ধু-বান্ধব নিয়ে ঘনিষ্টজনদের বাসা-বাড়ীতে গিয়ে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময়



« (পূর্ববর্তী খবর)
(পরবর্তী খবর) »



একই ধরনের খবর

  • নিউইয়র্কের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতিতে আমি সন্তুষ্ট নই
  • তিন দশকেও মেলেনি গ্রীনকার্ড : নিউইয়র্কে বাংলাদেশী আহমেদ হোসেন গ্রেফতার
  • সাংস্কৃতিক প্ল্যাটফর্ম ‘কণ্ঠচিত্র’র আতœপ্রকাশ ৩০ জুন
  • নিউইয়র্কে জাকির খান হত্যা মামলায় ঘাতক মাহরানের ১৫ বছরের জেল
  • ব্রঙ্কস ইউনাটেড ও আইসাবের পূর্ণ পয়েন্ট লাভ ॥ ব্রাদার্স ও সোনার বাংলা’র পয়েন্ট ভাগাভাগী
  • নিউইয়র্কে অর্ধ মিলিয়ন ডলারের সিগারেট স্ট্যাম্প জালিয়াতি : ঘরে লক্ষ লক্ষ ক্যাশ ডলার : একজন গ্রেফতার
  • নিউইয়র্ক সিনেটে ‘আনডক্যুমেন্টদের ড্রাইভিং লাইসেন্স’ বিল পাশ
  • সিলেট সদর থানা এসোসিয়েশনের নতুন কমিটি
  • Shares