জাঁকজমকপূর্ণ সিলেট সদর সমিতির বনভোজন প্রবাসীদের মিলন মেলায় পরিনত

নিউইয়র্ক: হযরত শাহজালাল, শাহ পরান সহ ৩৬০ আউয়ার স্মৃতি বিজরিত সিলেটবাসীদের সংগঠন সিলেট সদর সমিতি ইউএসএ ইনক’র বনভোজন জাঁকজমকপূর্ণভাবে গত ৮ জুলাই রোববার নিউইর্য়কের বেলী স্ট্রীম স্টেট পার্কে অনুষ্ঠিত হয়। সদর সমিতির এ আয়োজনে বিভিন্ন শহর থেকে বিভিন্ন শ্রেণী ও পেশার মানুষ উপস্থিত হন। বেলা ১১টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত চলে শিশু-কিশোর ও বয়স্কদের নানা ধরনের খেলাধুলা। বনভোজন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সিলেট পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান আ ফ ম কামাল।
অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্যে আ ফ ম কামাল বলেন, সিলেট সদর সমিতি প্রবাসে বাংলাদেশী মানুষের মিলন মেলা পরিনত করেছে। আমি আশা করি প্রতি বছরই তার ব্যতিক্রম হবে না। সমিতির ট্রাস্টি বোর্ড চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ফখরুল ইসলাম খান বলেন, স্থানীয় বাংলাদেশী কমিউনিটির স্বার্থে সিলেট সদর সমিতির কর্মকর্তা সকলেই একত্রিত হয়ে সামাজিক কর্মকান্ড এগিয়ে নেবেন এই প্রত্যাশা করি। বিশেষ অতিথি জালালাবাদ এসোসিয়েশন অব আমেরিকা ইনক-এর সভাপতি বদরুল হোসেন খান তার বক্তব্যে বনভোজনের মত অন্যান্য ভালো অনুষ্ঠানগুলোতে বাংলাদেশী প্রবাসীদের এগিয়ে আসার আহবান জানান।
বনভোজন উদ্বোধন ঘোষণা করেন জালালাবাদ এসোসিয়েশন অব আমেরিকা ইনক-এর সভাপতি বদরুল হোসেন খান। এসময় সিলেট পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান জনাব আ ফ ম কামাল, সদর সমিতির ট্রাষ্টি বোর্ড-এর চোয়ারম্যান আলহাজ ফখরুল ইসলাম খান, প্রাক্তন উপদেষ্টা একলিমুজ্জামান নুনু, কফিল আহমদ চৌধুরী, মনসুর আহমদ চৌধুরী, সিলেট এমসি গভ: কলেজ এলামনাই-এর সাবেক সভাপতি ও বাংলাদেশ সোসাইটির নির্বাচন কমিশনার সুফিয়ান খান, টুলটিকর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বিশিষ্ট রাজনীতিবীদ আজিজুর রহমান মানিক, মুক্তিযোদ্ধা শরফ সরকার, বিয়ানীবাজার সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সমিতি ইউএসএ’র সভাপতি মস্তফা কামাল, উপদেষ্টা মনসুর আহমদ চৌধুরী, সদর সমিতির উপদেষ্টা ও সিলেট জেলা রেড ক্রিসেন্ট-এর সাবেক সাধারণ সম্পাদক কফিল আহমদ চৌধুরী, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী শমশের আলী, সাবেক সভাপতি সাব্বির আহমদ, বিশিষ্ট রাজনীতিবীদ এবাদ চৌধুরী, বিলাল চৌধুরী, মাহবুব খান, জাহেদ চৌধুরী, আশফাক চৌধুরী লিটন, সাইকুল ইসলাম, জয় চৌধুরী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানের শুরুতে সমিতির উপদেষ্টা জুনেদ খান-এর ভাইয়ের অকাল মুত্যুতে শোক প্রকাশ করা হয়
শিশুকিশোর ও বড়দের জন্য দিনব্যাপী ছিল বিভিন্ন ধরনের খেলাধুলার ব্যবস্থা। খেলাধুলা পরিচালনা করেন সংগঠনের সহ সভাপতি তোফায়েল চৌধুরী ও আশফাক চৌধুরী হেমু, জয়নাল চৌধুরী, আহমদ রুশদী বাবু। অতিথি আপ্যায়ন ও খাবার পরিবেশনায় ছিলেন আক্তার হোসেন, শমশের আলী, আহমেদ রুশদী বাবু, সোয়েব আহমদ, শাহনুর কোরেশী, আলী আহসান বাবলা।
রাফেল ড্র পরিচালনা করেন শাহ নেয়াজ চৌধুরী ও নুরুল হক লাল প্রমুখ। রাফেল ড্র ও খেলাধুলার পুরস্কার বিতরণ করেন আগত অতিথিবৃন্দ এবং সিলেট সদর সমিতির কর্মকর্তাবৃন্দ।
যাদের সার্বিক সহযোগিতায় এবারের বনভোজন সফল হয়েছে তারা হলেন সংগঠনের সভাপতি দেওয়ান শাহেদ চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন আহমেদ চৌধুরী, বনভোজন উদযাপন কমিটির আহবায়ক শাহ মিজানুর রহমান, সদস্য সচিব সাইফুর আর খান হারুন, শাহনেওয়াজ চৌধুরী, জাহাঙ্গীর হোসেন ভুইয়া, আশফাক চৌধুরী হেমু, জয়নাল আহমদ চৌধুরী, শোয়েব আহমদ, আক্তার হোসেন, সৈয়দ আনিসুর আম্বিয়া, আসিফ চৌধুরী, আলী আহসান বাবলা, আহমেদ রুশদী বাবু নুরুল হক লাল প্রমূখ ।
রাফেল ড্র’র পুরষ্কারের বিষয়ে সহযোগিতায় ছিলেন এট্রোনি মঈন চৌধুরী, সৈয়দ নাজমুল হাসান কোবাদ, কাজী নয়ন আলী, সুফিয়ান খান, নজরুল ইসলাম (এস্টেরিয়া ডিজিটাল ট্রাভেলস), মনসুর আহমদ (গুলশান টোরেস), তাজমহল রেস্টুরেন্ট এন্ড ব্যাঙ্কয়েট।
অনুষ্ঠানে সিলেট সদর সমিতির সভাপতি দেওয়ান শাহেদ চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক হূমায়ুন আহমেদ চৌধুরী এবং বনভোজন কমিটির আহবায়ক শাহ মিজানুর রহমান ও সদস্য সচিব সাইফুর আর খান হারুন বনভোজনে আগত অতিথিদের স্বাগত জানিয়ে বলেন, অল্প সময়ের মধ্যে আমাদের এই আয়োজন করতে হয়েছে। এ আহ্বানে সাড়া দিয়ে বনভোজনে আসার জন্য তারা সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান। আগামীতেও এর ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে বলে উল্লেখ করেন সদর সমিতির কর্মকর্তারা। -প্রেস বিজ্ঞপ্তি।






একই ধরনের খবর

  • নিউইয়র্ক বাংলাদেশী আমেরিকান লায়ন্স ক্লাবের নতুন কমিটি অভিষিক্ত
  • নিউইয়র্ক সিটিতে বাড়ী ক্রয়ে ২০ হাজার ডলার সাহায্য গ্রহণের সুযোগ
  • জ্যামাইকায় বারী হোম কেয়ারের দ্বিতীয় শাখা উদ্বোধন
  • মুনাফা নয়, প্রবাসীদের সেবা দেয়াই স্ট্যান্ডার্ড এক্সপ্রেস’র লক্ষ্য ॥ দেশপ্রেম ছাড়া দূর্নীতি বন্ধ করা যাবে না
  • ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের পুনর্মিলনী
  • ক্যাবীর আতœহত্যা বাড়ছেই : বিলুপ্তির পথে ইয়েলো ক্যাব ইন্ড্রাষ্ট্রি!
  • নিউইয়র্ক মহানগর আ. লীগের বিবৃতি ‘ওদের দায় আওয়ামী লীগ নেবে কেন?’
  • Shares