জর্জ বুশ সিনিয়রের পরলোকগমন

হককথা ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট জর্জ এইচডব্লিউ বুশ সিনিয়র শুক্রবার (৩০ নভেম্বর) রাতে মারা গেছেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯৪ বছর। স্থানীয় সময় শুক্রবার রাতে মারা যান তিনি। তার ছেলে আরেক সাবেক প্রেসিডেন্ট জর্জ ডব্লিউ বুশ বিবিসিকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। শোক প্রকাশ করে তিনি টুইটারে বলেন, জেব, নেইল, মারভিন ও আমি খুবই দুঃখের সঙ্গে জানাচ্ছি যে ৯৪টি উল্লেখযোগ্য বছর পার করে তিনি মারা গেছেন। আমাদের প্রিয় বাবা আর নেই। এর আগে গত এপ্রিলে তার স্ত্রীর বারবারার মৃত্যুর এক সপ্তাহ পর হাসপাতালে নিবিড় পরিচর্যা ইউনিট হাসপাতালে তাকে ভর্তি করা হয়। তিনি দীর্ঘদিন ধরে পার্কিনসনস রোগে ভুগছিলেন।
জর্জ এইচডব্লিউ বুশ দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় ইউএস নৌবাহিনীর বিমান চালক ছিলেন। প্রেসিডেন্ট রোনাল্ড রিগানের আমলে তিনি ভাইস প্রেসিডেন্ট ছিলেন। পরবর্তীতে ১৯৮৯ থেকে ১৯৯৩ সাল পর্যন্ত তিনি প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তবে দ্বিতীয়বার প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে গিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের দুর্বল অর্থনীতির কারণে বিল ক্লিনটনের কাছে তিনি হেরে যান।
বৈশ্বিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে এক কঠিন এবং অনিশ্চিত সময়ে ৪১তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে তিনি দায়িত্ব পালন করেন। তার আমলে বার্লিন দেয়াল ভেঙে ফেলা হয় ও পূর্ব ইউরোপে সোভিয়েত সমর্থিত সমাজতন্ত্রের পতন ঘটে। তিনি পাঁচ সন্তান, ১৭ নাতি-নাতনি ও তাদের সন্তানদের রেখে গেছেন। যুক্তরাষ্ট্রের রাজনীতিতে একটি সফল পরিবারতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেন তিনি। তার এক সন্তান জর্জ বুশ দুইবার যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন। এছাড়া ১৯৬৪ সালে রিপাবলিকান পার্টিতে যোগ দেওয়ার আগে জর্জ এইচ ডব্লিউ বুশ টেক্সাসের একজন তেল ব্যবসায়ী ছিলেন।






একই ধরনের খবর

  • জর্জ ফ্লয়েড হত্যা : উত্তাল যুক্তরাষ্ট্রে ২০ হাজার ন্যাশনাল গার্ড মোতায়েন
  • বিশ্বের ইতিহাসে ভিন্নধর্মী ঈদুল ফিতর পালিত : করোনা মুক্ত বিশ্ব কামনা : করোনাকালের লক ডাউনে নিউইয়র্কের ঘরে ঘরে ঈদের জামাত
  • চাঁদ দেখা যায়নি : যুক্তরাষ্ট্রে রোববার ঈদ বাংলাদেশে সোমবার
  • করোনায় যুক্তরাষ্ট্রে প্রতি লাখে মৃত্যু ২৮.৮জন
  • যুক্তরাষ্ট্রে দুই কোটি ৫৭ লাখ বেকার : শ্রম বিভাগে আবেদন জমা পড়া অব্যাহত
  • করোনা : যুক্তরাষ্ট্রে একদিনে ২,৭৩৮ জনের মৃত্যু
  • পেনসেলভেনিয়ায় ব্যবসায়ীদের শাটডাউন স্থগিতের আবেদন খারিজ
  • ৫ হাজার থেকে মৃত্যু ৬৪ হাজারে, সনাক্ত ২ লাখ থেকে ১১ লাখ, টেস্ট সম্পন্ন হলো ৬৪ লাখ মানুষের
  • Shares