আবার ঘূর্ণিঝড়ের কবলে যুক্তরাষ্ট্রের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চল : ফ্লোরিডা, আলাবামা ও জর্জিয়ায়ও জরুরি অবস্থা ঘোষণা

হককথা ডেস্ক: সবশেষ আঘাত হানা হারিকেন-ফ্লোরেন্সের দখল কাটিয়ে উঠতে না উঠতে আবারো ঘূর্ণিঝড়ের কবলে যুক্তরাষ্ট্রের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চল। এবার ফ্লোরিডায় ৪ মাত্রার শক্তিশালী ‘হারিকেন-মাইকেল’ আঁচড়ে পড়েছে। মেক্সিকো বিচ থেকে শুরু হওয়ায় ঘন্টা প্রায় ২শ ৫০ কিলোমিটার গতিবেগের এ ঘূর্ণিঝড়টি আরো ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে বলে জানা গেছে। ইতোমধ্যে রাজ্যের প্রায় ৩ লাখ ৭০ হাজার বাসিন্দাদের নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। পরিস্থিতি মোকাবেলায় ফ্লোরিডা, আলাবামা ও জর্জিয়ায়ও জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে। দুর্যোগ মোকাবেলায় রাজ্য প্রশাসনকে সবধরণের সহায়তার আশ্বাস দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।
টাইম টেলিভিশন-এর খবরে বলা হয়েছে, বুধবার (১০ অক্টোবর) ভোরে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যের সমুদ্র তিরবর্তী উপকূলে, হারিকেন মাইকেল আরও দ্রুত শক্তি সঞ্চয় করছে। মূলধারার গণমাধ্যমগুলোতে প্রতিমুর্তের খবরে তা তুলে ধরা হচ্ছে। যদিও হারিকেন মাইকেলের বিপদজনক প্রভাব মোকাবেলায় পূর্ব প্রস্তুতির বিষয়ে আগেই জনসাধরণকে সতর্ক করেছিলেন আবহাওয়াবিদরা।
যুক্তরাষ্ট্রের ‘ন্যাশনাল হারিকেন সেন্টার’র সবশেষ তথ্যে বলা হয়েছে ঘণ্টায় ২শ ৫০ কিলোমিটার বেগের ঝড়ো বাতাস নিয়ে হারিকেন মাইকেলটি আরো শক্তিশালী হচ্ছে। যার বর্তমান মাত্রা ক্যাটাগরি চার। বিশ্লেষকরা বলছেন, ফ্লোরিডার উত্তরপশ্চিমাঞ্চলে এ পর্যন্ত যতগুলো ঘূর্ণিঝড় আঘাত হেনেছে, হারিকেন মাইকেল তার চাইতেও বেশী শক্তিশালী।
পরিস্থিতি মোকাবেলায় এরই মধ্যে ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে ফ্লোরিডার স্থানীয় ও রাজ্য প্রশাসন। ব্রিফিংয়ে গভর্নর রিক স্কট বলেন, ঘূর্ণিঝড়টি ভয়াবহ আকার ধারণ করছে। যা ‘অসম্ভাব্য বিধ্বংসী’। তাই ঝুঁকিপূর্ণ এলাকাগুলোর বাসিন্দাদের নিরাপদ আশ্রয়ে সরে যেতে বলেছেন তিনি।
ইতোমধ্যে রাজ্যের প্রায় ৩ লাখ ৭০ হাজার লোককে অপেক্ষাকৃত উঁচু স্থানে সরিয়ে নিতে বলা হয়েছে। পরিস্থিতি মোকাবেলায় ফ্লোরিডা, আলাবামা ও জর্জিয়ায়ও জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে। রাজ্য বাসিন্দাদের নিরাপদ আশ্রয়ের বিষয়টি তুলে ধরেন, জর্জিয়া গভর্নর।
‘মিয়ামিভিত্তিক হারিকেন কেন্দ্র- এনএইচসি’জানিয়েছে, মধ্য আমেরিকার ইউকাতান ও পশ্চিম কিউবায় আঘাতের সময় ‘হারিকেন-মাইকেলের’ গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ১শ ৩০ কিলোমিটার। যা এখন আরো বৃদ্ধি পেয়েছে। এর আগে মধ্য আমেরিকার ইউকাতান উপদ্বীপ ও পশ্চিম কিউবায় হারিকেন মাইকেলের প্রভাবে ঝড়ো বৃষ্টিপাত ও আকস্মিক বন্যায় সৃষ্ট ভূমিধসে ১৩ জনের প্রাণহানি ঘটেছে।
এদিকে, উদ্ভুত পরিস্থিতি মোকাবেলায় মঙ্গলবার থেকেই প্রস্তুতি নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। হোয়াইট হাউজের পক্ষে বিষয়টি জানানো হয়েছে। এছাড়া প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেছেন, ধেয়ে আসা হারিকেন-মাইকেল মোকাবেলায় সব ধরণের সহয়তা দিবে ফেডারেল সরকার। ছবি: সিএনএন






একই ধরনের খবর

  • ক্যালিফোর্নিয়ায় ভয়াবহ দাবানলে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৫০
  • ক্যালিফোর্নিয়ায় দাবানলে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩১
  • যে কারণে মার্কিন মধ্যবর্তী নির্বাচন গুরুত্বপূর্ণ
  • ‘ইতিহাস গড়তে আসিনি, আমরা পরিবর্তনের জন্য এসেছি’
  • ‘আমিই ইউএস কংগ্রেসে প্রথম হিজাবধারী মুসলিম নারী’
  • যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যবর্তী নির্বাচন : ট্রাম্পের সামনে অনেক বাধা আছে অভিশংসনের ভয়ও
  • নিম্নকক্ষে ডেমোক্রেটদের বিজয়
  • বিজয়ী হয়ে আলোড়ন তুলেছেন যারা
  • Shares